বাফেলোতে বাংলা ভাষা ব্যাপকভাবে ব্যবহারে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ : মেয়রের সাথে বৈঠক

প্রকাশিত: 4:10 PM, June 12, 2022

বাফেলোতে বাংলা ভাষা ব্যাপকভাবে ব্যবহারে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ : মেয়রের সাথে বৈঠক

Agaminews
নিউইয়র্ক
Space for ads

বাফেলোতে বাংলা ভাষা ব্যাপকভাবে ব্যবহারে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ : মেয়রের সাথে বৈঠক
newsup প্রকাশিত: June 12, 2022 বাফেলোতে বাংলা ভাষা ব্যাপকভাবে ব্যবহারে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ : মেয়রের সাথে বৈঠক
ডেস্ক রিপোর্ট : নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল এর কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম ১০ জুন ২০২২ বাফেলো সিটির মেয়র বায়রন ডব্লিউ ব্রাউন এর সাথে তাঁর কার্যালয়ে সাক্ষাত করেন।
কনসাল জেনারেল ড. মনিরুল ইসলাম বাফেলো সিটি এলাকায় বসবাসরত বাংলাদেশী কমিউনিটির স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তাঁর সক্রিয় এবং অর্থবহ উদ্যোগ ও ভূমিকার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। কনসাল জেনারেল এসময় কমিউনিটির কল্যাণে আগামী দিনগুলিতে একসাথে অধিকতর ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। মেয়র ব্রাউন বাফেলোতে বসবাসরত বাংলাদেশীদেরকে “ভালো বন্ধু” হিসেবে আখ্যায়িত করে তাদের মেধা, দক্ষতা ও সৃজনশীলতার প্রশংসা করেন। বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর পূর্তি হওয়ায়, এ বছরটি অতীব তাৎপর্যপূর্ণ উল্লেখ করে কনসাল জেনারেল আগামীতে দু’দেশের মধ্যেকার বিরাজমান সহযোগিতার ক্ষেত্রসমূহ আরো সুদৃঢ় ও সম্প্রসারিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বাফেলোতে বাংলা ভাষা-ভাষীর সংখ্যা ক্রমাগত ভাবে বৃদ্ধি হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে কনসাল জেনারেল বাফেলোতে বাংলা ভাষাকে আরো ব্যাপকভাবে ব্যবহার ও প্রসারের বিষয়ে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। প্রসঙ্গক্রমে মহান ভাষা আন্দোলনের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট, চেতনা ও গুরুত্ব এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি আদায়ে ৫২’র ভাষা আন্দোলনের অবদান সম্পর্কে মেয়রকে ব্যাখ্যা করেন কনসাল জেনারেল। বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে আরো বিকশিত করার জন্য ফিল্ম ফ্যাষ্টিভাল, ফুড ফ্যাষ্টিভাল ও বাংলাদেশের উপর চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা যেতে পারে যা বিভিন্ন ভাষা ও সংস্কৃতির মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরীতে সহায়তা করবে বলে বৈঠকে মত প্রকাশ করা হয়।
বৈঠকে কনসাল জেনারেল মেয়র বায়রন ডব্লিউ ব্রাউন -কে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের দৃশ্যমান আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিষয়ে অবহিত করেন। এসময় তিনি বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত বিনিয়োগবান্ধব নীতি ও পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্য ও বিনিয়োগের অপার সম্ভাবনা রয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার সাফল্যগাথা শুনে মেয়র ব্রাউন অভিভূত হন।

সর্বশেষ সংবাদ