ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াইরত সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট বলেছে, ‘তিনটি ড্রোন হামলার পাশাপাশি দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

এ জোটের উদ্ধৃতি দিয়ে রাষ্ট্র পরিচালিত আল-ইকবারিয়া টেলিভিশনেও এসব হামলা ঠেকিয়ে দেয়ার খবর পরিবেশন করা হয়। তাদের খবরে আরও বলা হয়, জোট বেসারিক নাগরিকদের রক্ষায় ‘কঠোর পদক্ষেপ’ গ্রহণ করবে।

তবে সৌদিতে এসব হামলায় হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি। সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলীয় আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্রোন হামলার চারদিন পর এসব হামলা চালানো হলো। সেখানে ওই ড্রোন হামলায় আটজন আহত ও একটি বেসামরিক বিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

জাতিসংঘের ইয়েমেন বিষয়ক নতুন রাষ্ট্রদূত হ্যান্স গ্রান্ডবার্গ রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে তার দায়িত্ব নিতে যাওয়ার মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে এসব হামলা চালানো হলো।

হুতি বিদ্রোহীরা সানা দখল করে নেয়ার পরপরই ২০১৫ সালে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি দেওয়া সরকারের পক্ষে ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরব হস্তক্ষেপ করে।