অক্টোবরেই শেষ হতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের নগদ তহবিল, বিশ্বে অর্থনৈতিক সংকটের শঙ্কা

নিউজ ডেস্কঃ কংগ্রেস ঋণের সীমা না বাড়ালে ১৮ অক্টোবরের মধ্যে মার্কিন সরকার অর্থ সংকটে পড়তে পারে বলে মার্কিন ট্রেজারি সেক্রেটারি জ্যানেট ইয়েলেন সতর্ক করেছেন।

ওয়াশিংটন যথাসময়ে পদক্ষেপ না নিলে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র ঋণ খেলাপি হতে পারে বলে বুধবার এক মার্কিন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আয়ের চেয়ে বেশি ব্যয় করছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। ফলে সেনাবাহিনীর বেতন, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীদের অবসরভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বন্ধ হয়েছে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র যদি ঋণের সুদ শোধ করতে না পারে তাহলে বন্ধক, গাড়ির লোন ও ক্রেডিট কার্ডের বিলও ঊর্ধ্বমুখী হয়ে যাবে।

এছাড়া, যুক্তরাষ্ট্র ঋণখেলাপি হলে দেশটির লাখ লাখ মানুষ চাকরি হারাতে পারে। একই সঙ্গে মহামারির ধকল কাটিয়ে উঠার ক্ষেত্রেও বিষয়টি নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অবশ্য মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট এর আগেই অনুমান করেছিল যে অক্টোবরের কোনো এক সময়ে সরকারের নগদ তহবিল শেষ হয়ে আসতে পারে।

এদিকে, মার্কিন ঋণের স্থিতিশীলতাকে বৈশ্বিক অর্থনীতির ভিত্তি মনে করা হয়। তাই ওয়াশিংটনের এই দুরাবস্থার কারণে সমগ্র বিশ্বের অর্থনীতিকে সংকটে ফেলে দেবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মার্কিন অর্থনীতির এই অচিন্তনীয় পরিণতির জন্য দেশটির দ্বন্দ্বে লিপ্ত রাজনীতিবিদদের দায়ি করেছেন বিশ্লেষকরা। রিপাবলিকানরা এ ব্যাপারে কোনো সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে বলেছেন ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটরা বেহিসাবি খরচ করে দেশের ঋণের বোঝা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *