যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত হয়ে ফয়জুন্নিসা আবার ফিরে আসবেন সেই প্রত্যাশা সবার

প্রকাশিত: 4:59 AM, October 9, 2021

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত হয়ে ফয়জুন্নিসা আবার ফিরে আসবেন সেই প্রত্যাশা সবার

নিউজ ডেস্কঃ  নিউইয়র্কে কর্মরত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুন্নিসা ব্রাজিলে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে পদন্নোতি পেয়েছেন কিছুদিন আগে। ৩ বছর তিন মাস দায়িত্ব পালন শেষে তিনি খুব শিগগিরই ব্রাজিলে নতুন কর্মস্থলে যোগ দেবেন। আগামীকাল ৮ অক্টোবর শুক্রবার নিউইয়র্ক কনসুলেটে তার শেষ কর্মদিবস।

সফল ও মেধাবী এই কূটনীতিক পদোন্নতি পাওয়ায় তার সম্মানে এক নৈশভোজের আয়োজন করে স্পোর্টস ফাউন্ডেশন অব নর্থ আমেরিকা।
নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসে গতকাল সোমবার রাতে আয়োজিত ওই ভোজসভায় নিউইয়র্কের সমাজ সেবক, ব্যবসায়ী, শিল্পানুরাগী, সাংস্কৃতিক কর্মী, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার শতাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এশিয়ান ড্রাইভিং স্কুলের হলরুমে মজুমদার ফাউন্ডেশন, বাফা ও হৃদয়ে বাংলাদেশের সহযোগিতায় এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্পোর্টস ফাউন্ডেশনের সভাপিত আব্দুর রহিম বাদশা। এবং সঞ্চালনা করেন সাবেক জাতীয় ফুটবলার গোলাম মোস্তফা।

ভোজসভায় আমন্ত্রিত অতিথিরা বাংলাদেশীদের জন্য অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে সবেচেয়ে ভালো কনসুলেট সেবা চালু করায় সাদিয়া ফয়জুন্নিসার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তারা তাকে জনবান্ধব কূটনীতিক হিসেবে আখ্যায়িত করে অদূর ভবিষ্যতে ওয়াশিংটনে অথবা জাতিসংঘ স্থায়ী মিশনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হয়ে আবার ফিরে আসবেন বলে প্রত্যাশা করেন।

একইসঙ্গে তারা ব্রাজিলের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও মজুবত করতে সাদিয়া ফয়জুন্নিসাকে কার্যকর ভূমিকা নেয়ার অনুরোধ জানান। সেখানে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য উচ্চতর পড়াশোনার সুযোগ সৃষ্টি, ব্যবসা বানিজ্য বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে পারস্পারিক বিনিময় বৃদ্ধি সর্বোপোরী বাংলাদেশকে ব্রাজিলের কাছে উন্নয়নশীল দেশের উৎকৃষ্ট উৎহারন হিসেবে তুলে ধরার আহ্বান জানান।
জবাবে কনসাল জেনারেল তার সম্মানে দেয়া ভোজসভার আয়োজক ও এখানে বসবাসরত সকল শ্রেনী পেশার বাংলাদেশীদের প্রতি অন্তরের গভীর থেকে কৃতজ্ঞতা জানান।

সাদিয়া ফয়জুন্নিসা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় আমি ২০১৮ সালের জুন মাসে কনসাল জেনারেল হিসেবে যোগ দেই। এখানে যোগদানের পর কনসাল সেবা কিভাবে জনবান্ধব করা যায় সেটাই ছিলো আমার প্রথম প্রায়োরিটি। আমি হয়তো এক’শ ভাগ পারিনি কিন্তু চেষ্টার কোন ত্রুটি ছিলোনা।

আমি এখানে শুধু সরকারের একজন কূটনীতিক হিসেবে ছিলাম না আমি আপনারদের একজন বোন হিসেবে আপনাদের সেবা করার চেষ্টা করেছি। আপনারাও আমাকে আপনাদের পরিবারের একজন হিসেবেই একাত্ম করে নিয়েছিলেন। আপনাদের এই উষ্ণ ভালোবাসার কথা আমি কখনোই ভুলবো না।

নিউইয়র্কে বসবাসরত বাংলাদেশীদের প্রত্যেককে রাজমুকুটের রত্ম আখ্যায়িত করে বলেন, আপনারা প্রত্যেকেই মেধাবী, কর্মঠ এবং একে অপরের প্রতি সমমর্মী। করোনাকালে একজন আরেকজনের ঘরে খাবার নিয়ে ছুটে গেছেন। লাশ দাফন করার জন্য একে অপরকে প্রানপণ সহযোগিতা করেছেন।

আপনারা সবাই আলোকিত ও ভালো মানুষ। এই আলো প্রকৃত আমেরিকানদের মধ্যে নেই। এটা এখন তাদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে আপনাদের সংঘবদ্ধ থাকতে হবে। আপনারা প্রবাসে দলাদলি ভুলে গিয়ে বাংলাদেশকে কিভাবে বিদেশের কাছে উচ্চ আসনে তুলে ধরা যায় সেই চেষ্টা করবেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ব্রাজিলকে ভালোবাসে। বিশ্বকাপ ফুটবলের সময় লাখো মানুষের বাড়ির ছাদে ব্রাজিলের পতাকা ওড়ে। বাংলাদেশ যেমন ব্রাজিলকে ভালোবাসে ব্রাজিল যেন ঠিক সেইভাবে বাংলাদেশকে ভালোবাসে ব্রাজিলে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে সেটিই হচ্ছে আমার প্রথম কাজ।

একই সঙ্গে ব্রাজিল ফুটবল দলের সঙ্গে বাংলাদেশ ফুটবল দলের যেন বছরে দুটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ হয় (একটি বাংলাদেশে একটি ব্রাজিলে) আমি সেই চেষ্টা করবো।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মজুমদার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও ডেমোক্র্যাট নেতা আইনজীবি এন মজুমদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ মাসুদুল হাসান, বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল চৌধুরী,সাবেক কৃতি ক্রীড়াবিদ ও ঠিকানার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাইদ উর রব, বাফার প্রেসিডেন্ট ফরিদা ইয়াসমিন, হৃদয়ে বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান লিংকন, কমিউনিটি এ্যক্টিভিষ্ট জুনেদ আহমেদ চৌধুরী, এনওয়াই ইন্সুরেন্স ও গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মঞ্জুর আহমেদ, যুবনেতা কাজী কয়েস, যুবনেতা শেখ জামাল হুসেইন, নারী নেত্রী রেক্সনা মজুমদার, বাফার বাংলা বিভাগের শিক্ষক আনোয়ারুল হক লাভলু, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সাধারন সম্পাদক নূরে আলম জিকু, শাখাওয়াত আলী, হুসেইন আহমেদ, সাবেক জাতীয় দলের বক্সার সৈয়দ এনায়েত আলী, কুমিল্লা সোসাইটির সহ সভাপিত মিয়া মোহাম্মাদ দাউদ, মতলু মিয়া, যুবনেতা রেজা আবদুল্লাহ স্বপন, নুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা শরাফ সরকার, সামাদ মিয়া, বরেণ্য শিল্পী খোরশেদ সেলিম প্রমুখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ