আ’লীগ প্রতিনিধি দলের ঘটনাস্থল পরিদর্শন : অগ্নিকাণ্ডে দোষীদের সাজা পেতে হবে

প্রকাশিত: 11:41 AM, July 12, 2021

আ’লীগ প্রতিনিধি দলের ঘটনাস্থল পরিদর্শন : অগ্নিকাণ্ডে দোষীদের সাজা পেতে হবে

নিউজ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাসেম ফুডস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ৫২ শ্রমিক মৃত্যুর ঘটনায় রোববার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল। সাত সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন আওয়ামী লীগের ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম। এ সময় তিনি বলেন, অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। শুনেছি, ভবনের একটি ফ্লোরে শ্রমিকদের তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছিল। এ ঘটনা উদ্ঘাটন করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক, আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ূয়া, কেন্দ্রীয় কার্যকরী সদস্য আনোয়ার হোসেন, শাহাবুদ্দিন ফরাজী, সৈয়দ আবদুল আউয়াল শামীম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা।

মির্জা আজম বলেন, হাসেম ফুডস কারখানায় মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় ৫২ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় তিনটি তদন্ত কমিটি হয়েছে। কমিটির তদন্ত অনুযায়ী যারা দোষী হবেন, তাদের বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বলেছেন, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে। নিহতদের সরকারের পক্ষ থেকে দুই লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে। আহত শ্রমিকদের আরও সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগের এ জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, এ ধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে, সে জন্য বিভিন্ন আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে প্রতিষ্ঠানের মালিকসহ আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দুর্ঘটনার জন্য মালিকপক্ষের পাশাপাশি সরকারি বিভিন্ন সংস্থা, যেমন- কলকারখানা অধিদপ্তর, শ্রম অধিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিস, রাজউকসহ যাদেরই এ প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে গাফিলতি রয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে তাদের চিহ্নিত করে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। তিনি আরও বলেন, এ কারখানায় কীভাবে শিশু শ্রমিকরা কাজ করতে এলো, কারা এখানে শিশুদের নিয়ে এসেছে- তদন্ত করে সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রূপগঞ্জের কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত হাসেম ফুডস অ্যান্ড বেভারেজের সেজান জুস কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রাণ হারিয়েছে শিশুসহ ৫২ শ্রমিক। আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ