নিউজ ডেস্কঃ  আগামী অর্থবছরের বাজেটেও কালো টাকা সাদা করার সুযোগ থাকছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, যতদিন অর্থনীতিতে অপ্রর্দিশত অর্থ থাকবে, ততদিন এ সুযোগ অব্যাহত রাখবে সরকার।

গতকাল অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত ও সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনলাইনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তিনি সভাপতিত্ব করেন।

অর্থমন্ত্রীর কাছে সাংবাদিকরা জানতে চেয়েছিলেন আগামী অর্থবছরে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ থাকছে কিনা? জবাবে তিনি বলেন, কালোটাকা নয়। অপ্রদর্শিত টাকা। এবারও এ সুযোগ থাকবে। অপ্রর্দিশত টাকা যতদিন পর্যন্ত প্রদর্শিত হবে না, ততদিন সরকার এ সুযোগ দিতে থাকবে।

তিনি বলেন, দেশের কিছুক্ষেত্রে পদ্ধতিগত কারণে অনেক সময় টাকা অপ্রদর্শিত থাকে। এসব অর্থ যদি প্রদর্শন করার সুযোগ দেওয়া না হয়, অর্থনীতির মূলধারায় না আনা হয়, তাহলে অর্থনীতি ঠিকভাবে কাজ করবে না।

আগামী বাজেটে অপ্রদর্শিত টাকা প্রদর্শনের সুযোগ চলতি অর্থবছরের মত একই রকম শর্তে থাকবে কিনা জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, সেটা এখনই বলা যাবে না। এজন্য বাজেট পেশের দিন আগামী ৩ জুন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। উল্লেখ, চলতি অর্থবছরে বিনা প্রশ্নে মাত্র ১০ শতাংশ কর দিয়ে অধিকাংশ ক্ষেত্রে অপ্রর্দিশত অর্থ প্রদর্শন করা যাচ্ছে। এছাড়া জমি ও ফ্লাটের ক্ষেত্রে বর্গফুট অনুযায়ী কর পরিশোধ করে প্রদর্শন করা বা আয়কর রিটার্নে উল্লেখ করা যাচ্ছে।

এসএমই খাতে প্রণোদনার ঋণ বিতরণ বিষয়ে তিনি বলেন, মধ্যস্বত্ত্বভোগীর বাইরে গিয়ে ছোট ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ দেওয়া হচ্ছে। এজন্য দেরি হচ্ছে। যাদের অ্যাকাউন্ট নেই, তাদের অ্যাকাউন্ট খোলানো হচ্ছে। আগের চেয়ে পরিস্থিতি অনেক উদ্ধৃতি হয়েছে।

বুধবারের অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে দুটি ও ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রীসভা কমিটির বৈঠকে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন করা হয়েছে।